লুনা রাহনুমা

লুনা রাহনুমা

জন্ম ও বেড়ে উঠা বাংলাদেশে।

কলেজ জীবনে লেখালেখির জগতে প্রবেশ। মাঝখানে অনেকগুলো বছরের বিরতির পর আবার লিখতে শুরু করেছেন। বর্তমানে তার লেখা প্রকাশিত হচ্ছে বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিকে, দুই বাংলার বিভিন্ন সাহিত্য পত্রিকা, মুদ্রিত লিটল ম্যাগাজিন ও ওয়েবজিনে লিখছেন গল্প, কবিতা, অনুবাদ।

বই পড়া ও কবিতা শোনা প্রিয় অভ্যাস।

প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ দুইটি। “ভালোবেসে এঁকে দিলাম অবহেলার মানচিত্র”(১৯৯৯) এবং “ফুঁ”(২০০০), বিশাকা প্রকাশনী। গল্পগ্রন্থ “নারীবৃক্ষ” প্রকাশিত হয়েছে এশিয়া পালিকেসন্স থেকে, ২০২১ ডিসেম্বরে।

বর্তমানে যুক্তরাজ্যের সুইন্ডনে বসবাস করছেন। কর্মজীবনে পে-রোল একাউন্ট্যান্ট হিসেবে কর্মরত আছেন।

লুনা রাহনুমা

Showing the single result

Show:

দিগন্তের দিকে হেঁটে যাওয়া মেয়েটি

Highlights:

:আমাদের বিয়ে করা উচিত, রেজি বলেছে

:তোমার তাহলে আমাকে বিয়ের প্রস্তাব করতে হবে প্রথমে, ভেনেসা বলেছে

:আমাদের কয়টি বাচ্চা নেওয়া উচিত?

:দুইটি। একটি মেয়ে এবং একটি ছেলে

নান্দোসে বসে, রেজি ভেনেসাকে নিজের সম্পর্কে সব কথা বলতে থাকে। আর ভেনেসা শুনতে থাকে। মাথা নাড়ে। আর হাসে। পেরি-পেরি মুরগির স্বাদ, চিটচিটে আলু ভাজা, আর মুখের ভেতর বরফ-ঠান্ডা কোকের হিম আনন্দ বয়ে যাচ্ছিল। রেজি বুঝতে পারল মানিব্যাগ ভুলে বাড়ি ফেলে এসেছে। তাই নান্দোসে খাবারের দাম ভেনেসাই দিয়েছিল।

বাড়ি ফেরার সময় তারা এন২৯ নাম্বার বাসে উঠেছিল। বাসের শেষ স্টপে নামার পর রেজি বলল, আমি তোমাকে ফোন করব। মুখে কিছু না বললেও মনে মনে ভেনেসা বলেছে, তোমার কাছে আমার ফোন নম্বর নেই…… (গল্প- পেট)

এই অনুবাদ গল্পগ্রন্থেআছে মোট ১২টি ব্রিটিশ গল্পের অনুবাদ। মূল ইংরেজি গল্পগুলো গত তিন থেকে পাঁচ বছরের ভেতর লেখা। প্রতিটি গল্পে রয়েছে আলাদা প্লট এবং ব্যতিক্রম পটভূমিকার অবতারণা। ইংল্যান্ডে সামাজিক ও পারিবারিক পরিবেশ, মানুষের চিন্তাধারা, জীবন-ধারণের প্রক্রিয়া সম্পর্কে কিছুটা উপলব্ধি করা যাবে গল্পগুলো পড়লে। এছাড়া, সাহিত্যে পাঠের নির্মল আনন্দ তো রয়েছেই।

দিগন্তের দিকে হেঁটে যাওয়া মেয়েটি

$ 2.47 25% Off
Scroll To Top
Close
Close
Shop
Sidebar
0 Wishlist
0 Cart
Close

My Cart

Shopping cart is empty!

Continue Shopping