Poem (কবিতা)

Poem (কবিতা)

(Showing 1 – 12 products of 159 products)

Show:

ভোর বিনিময় প্রথা

Highlights:

কবিতা লিখতে গিয়ে বার বারই মনে হয়েছে, পৃথিবীর চেয়েও আকাশ সুন্দর।
রাতের নক্ষত্রের চেয়ে মানুষ সুন্দর।বাগানের ফুলের চেয়েও মানুষের স্বপ্নগুলো
সুন্দর।
আমি কবিতায় সেই সুন্দর প্রত্যাশাগুলোকেই সাজাতে চেয়েছি।কী পেরেছি-
তা সুপ্রিয় পাঠক-পাঠিকাই বলতে পারবেন!
লেখালেখি গভীর সাধনার নাম। পরবাসে থেকে কাজটি সহজ নয়।তারপরেও
চেষ্টা করেছি, চেষ্টা করছি।

আমার এই কাব্যগ্রন্থটি প্রকাশ করছে বাংলাদেশের অন্যতম প্রকাশনী সংস্থা
‘অনুপ্রাণন প্রকাশন’। এর স্বত্বাধিকারী বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা শ্রদ্ধাভাজন আবু এম ইউসুফের প্রতি বিনীত কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
কবিতা মানুষকে আলোকিত করে, কবিতা মানুষকে ধ্যানী করে তোলে।
সংকটকালীন এই বিশ্বে, মানবতার জয় হোক।মানুষে মানুষে ভালোবাসা ছড়িয়ে
পড়ুক- এই প্রত্যাশাই আজ। অনেক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা সবাইকে।

ফারহানা ইলিয়াস তুলি
নিউইয়র্ক
২৩ ডিসেম্বর ২০২১

 

ফারহানা ইলিয়াস তুলি

$ 1.41 25% Off

একা এক দারুগাছ

Highlights:

মায়ের জঠরে রক্তের নদীতে
সাঁতরে সাঁতরে
জন্মাতে চাইনি রক্তপাতে
অস্থির এই পৃথিবীতে

জন্মাতে চাইনি বলে
মা’র সাথে তর্কবিতর্কে-
অপেক্ষা করেছি নয় মাস

মা একদিন পৃথিবীর সব ব্যাথা
গোপনে শুষে বললো
বাছা, ন’মাস তো শেষ,
এবার জন্ম হও
আজ ১৬ ডিসেম্বর

একা এক দারুগাছ

$ 1.76 25% Off

নিষাদের ডালপালা

Highlights:

আমাকে শেখায় নিরক্ষর হাওয়া, আলাভোলা স্রোত
ছাতিম ফুলের  ঘ্রাণে নারীগন্ধ চিনি
অনেক পিছিয়ে পড়ে নরম মাটিতে দেখি
খরগোশ রেখে গেছে পায়ের অস্পষ্ট ছাপ, আমার বাংলায়

কার ভিটে পড়ে আছে গ্রামের দক্ষিণে?
কিছুদূরে  হা-করা মুখের নদী, কখনো সে অজগর
কখনো বা ঋতুমতী বউয়ের আদর

নিষাদের ডালপালা

$ 1.76 25% Off

ডেকে নিও গোপনে

5 ★
5 ★
1 Rating
5 ★
1
4 ★
0
3 ★
0
2 ★
0
1 ★
0
Highlights:

‘পুরো সিরিজটির মধ্যে টের পাই, তুমি শক্তিমত্তা নিয়ে ধেয়ে আসছ।’ বেশ কিছুদিন হয় মারুফ আহমেদ নয়ন ‘ডেকে নিও গোপনে’ পাণ্ডুলিপিটি মেইল করে পড়তে দিলে পাঠপ্রতিক্রিয়ায় উপর-উদ্ধৃত বাক্যটি লিখেছিলাম। আজ সেই পাণ্ডুলিপির পুণঃপাঠে ওই বাক্যটিকে রেখেই কথা বলতে হচ্ছে। নয়ন বয়সে নবীন, তুলনায় ওঁর কবিতা অনেক ম্যাচিউর। অবাক হতে হয়, পাণ্ডুলিপির কবিতাগুলো সদ্য বয়সন্ধিকাল পেরিয়ে আসা একজন কবির লেখা। সে ক্ষেত্রে পোলিশ কবি রেনিয়া স্পাইগেলের কথা মনে পড়ে। যদিও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে হলোকস্টের শিকার হয়ে রেনিয়া’র কিশোর বয়সেই দুঃখজনক মৃত্যু হয়েছিল, তা বাদে কবিতার বোধ ও চেতনার দিক থেকে নয়ন যেন রেনিয়ার উত্তরাধিকার। মারুফ আহমেদ নয়নের কবিতায় আবহমান বাংলা কবিতার আবেগ আছে, তবে তা বাড়াবাড়ি পর্যায়ের মনে হয় না। আবেগের লাগাম টেনে ধরে তার যথার্থ ব্যবহারের সক্ষমতা আছে নয়নের। ওঁর কবিতায় চিত্রকল্প ও কল্পচিত্রের ব্যবহারগুলো মুগ্ধ করে। ওঁর ভাষা বয়ন সুন্দর-স্বচ্ছ। কবিতায় অনুকরণ অনুসরণ নিয়ে আজ কথা উঠছে। কারও কবিতার ভাষা বা শৈলী পাঠক সমাজে সামান্য মান্যতা পেলে তাকেই মুদ্রার মতো ভাঙিয়ে লিখছেন অনুজ ও সমসাময়িকরা। সে ক্ষেত্রে মারুফ আহমেদ নয়ন নিজেকে অপর দূরত্বে রাখেন। শিল্পের জন্য কবিতার জন্য যা স্বাস্থ্যকর। আবহমান বাংলা কবিতার মুকুটে মারুফ আহমেদ নয়ন একটি নতুন পালকের সংযুক্তি হিসেবে স্মরণীয় হোক।

মাসুদার রহমান
সোনাপাড়া
১৬/১১/২০২১

ডেকে নিও গোপনে

$ 1.32 25% Off

উন্মাদ ফুল

Highlights:

কবিতা মৃদুর তীব্রতা। মৃদুভাষের তুলি দিয়ে ভাবনার আঁকিবুকি। তীব্র আঁকিবুকিগুলো রায়হান শরীফের কবিতায় এসে ভাষণ,বক্তৃতা, শ্লোগান হতে পারিনি, বরং নিজেরাই পথ করে নিয়েছে। চলেছে অনবধানে কবির ষড়যন্ত্রের বাইরে গিয়ে, নিজস্ব ব্লুপ্রিন্ট মাফিক পথ চলে!

সকল পথের গন্তব্য কিন্তু সাবলিমিটিকে ধরার (অপ)চেষ্টা।এর শেষ নেই।তাই কবিতাও লেখা হচ্ছে, হবে, হতেই থাকবে। একজন পাঠক না থাকলেও পৃথিবীতে একজন কবি ঠিক ততদিন থাকবেন যতদিন ভাষা থাকবে কারণ ভাষার সম্পূরক কোণই কবিতা। রায়হান শরীফ তাঁর দেখার ভঙ্গিমায়, তাঁর উপস্থাপিত সম্পূরক কোণে পাঠককে আহবান করেন এক বিচিত্র আনন্দ-ভ্রমণে।

$ 1.41 25% Off

সরকারি কবিতা

Highlights:

‘পিকাসো হইলো পেইন্টিংয়ের গড’-  ক্লাসে কতোবার যে বলিছেন উনি
আমার রাগও হইছে
হাসিও পাইছে
তাইলে আপ্নে আমার কী
-গডেস
-এ্যাঞ্জেল
-জোয়ান অব আর্ক
-না
আপ্নে আমার কবিতা
আপ্নেরে নিয়া কবিতা লিখুম
হ কবিতাই লিখুম ভাইবেন্না কিউট সেক্সুয়াল ফেটল্স
বা জাস্ট ওরিয়েন্টাল মেটাফর
ভাইবেন যা হোক
কবিতায় কিন্তু আপ্নের লগে আমার কাইজ্জা আছে
আপ্নে আমারে কি কম কষ্ট দিছেন্নি

সরকারি কবিতা

$ 1.41 25% Off

দরজা খুলে খুলে যায়

Highlights:

কবে কখন হৃদয়ের গভীরে কবিতার শিকড়বাসনা গজিয়ে উঠেছিল ঠিক মনে নেই। শুধু মনে করতে পারি, জন্মের পর থেকেই মায়ের মুখে ছড়া শুনে শুনে ঘুমানোর কথাগুলো।কৈশোরে মাঠ-ঘাট,নদী-নালার ধারে ধারে খেলা ও জীবনের স্বর্ণালী সময়গুলো পার করে এসেছি যৌবনে। এখানে পা রেখেই কবিতার অনুভূতি উপলদ্ধিতে বাসা বাঁধে। কাব্যবৈভবের বৃত্তে আবর্তিত হতে থাকি,রক্তনালীতে রোমাঞ্চকর দৃশ্যগুলো আলোড়িত হতে থাকে। ধীরে ধীরে অন্য একভূবনে হাঁটাচলা শুরু হয়। আত্মবিশ্বাসে বিশ্বাসী হয়ে উঠি। মূর্ত থেকে বিমূর্ত এক মনন গড়ে ওঠে নিজস্ব জগতে। ব্যঞ্জনাপূর্ণ কল্প ও চিত্রকল্প নিয়ে ভাবনাগুলো বিস্তার ও প্রকাশ হওয়ার বাসনায় অধির হতে থাকি।  এরপরই আঞ্চলিক পত্রিকার পাতায় এবং ধীরে ধীরে জাতীয় দৈনিকে লেখা পাঠাতে  থাকি। সে লেখা প্রকাশের সাথে সাথে আনন্দ তৃষ্ণা বেড়ে যায়। আকাঙ্খার জাগ্রত জগত কাদাজল, বালিমাটি,চন্দ্রসূর্য, সবুজ নীলিমা ছাড়িয়ে নদী ও নারীর প্রেমে আবদ্ধ হয়ে পড়ে কখনো কখনো। সে ভিন্নসাধের আস্বাদনে মুগ্ধ হতে হতে এ পর্যন্ত চলে এসেছি।

বই প্রকাশের পূর্বে লিটল ম্যাগের মাধ্যমে অনুপ্রাণিত হই। সৌভাগ্যক্রমে পেয়ে যাই,অনুপ্রাণন প্রকাশন এবং তার স্বত্ত্বাধিকারী শ্রদ্ধেয় আবু এম ইউসুফ ভাইয়ের মত একজন সৎ মানুষের সন্ধান।  বই প্রকাশের জন্য আমার মত একজন  শিক্ষককে সুযোগ করে দিয়েছেন তিনিই। কৃতজ্ঞতা  ও ঋণ তার কাছেই বার বার।

দরজা খুলে খুলে যায়

$ 1.41 25% Off

অতল জলের গাঁও

Highlights:

মেঘনা তোমার নাম দিল কে
কোনখানে তার বাড়ি–
মুখে কি তার ভরা ছিল
লম্বা লম্বা দাঁড়ি?

মেঘনা তুমি কার বিরহে
কলকলিয়ে কাঁদো–
কখনও কি পড়েছিলে
মলমপার্টির ফাঁদো?

মেঘনা তুমি লুট করে সব
কাকে নিয়ে দাও–
তোমারও কি সঙ্গী থাকে
অতল জলের গাঁও?

মেঘনা তুমি কোনোকালেই
চুপ হবে না আর–
সারা জীবন বইবে কাঁধে
রঙিন দুঃখের ভার?

অতল জলের গাঁও

$ 1.32 25% Off

পৌষালি ঘড়ির পোস্টমোর্টেম

Highlights:

কবি সিদ্ধার্থ অভিজিৎ উপস্থিত হয়েছেন পৌষালি ঘড়ির পোস্টমর্টেম এর প্রতিবেদন জানাতে। নিজের উপলব্ধি তিনি প্রকাশ করেছেন সংহত শব্দবিন্যাসে। কবি দেখেছেন ‘ঘুম পেলেই সবাই বাড়ি যায় না’ কিংবা ‘শাঁখের করাত’ যে দুদিকে কাটে, তাতে কাটা যাচ্ছে না বোধের সত্তাকে। বই অনন্তযৌবনা, কিন্তু সিদ্ধার্থ অভিজিৎ দেখেছেন, ‘বইটা বুড়ো হয়ে গেছে।/ ঠাকুর্দার চুলের মতো/ বই থেকে একে একে খসে পড়ছে পাতা।’ এই যে দৃষ্টির নবায়ন, তার ভেতরেই লুকিয়ে আছে তাঁর কবিত্ব। নিত্যব্যবহার্য আটপৌরে শব্দকেও তিনি কবিতা বানাতে পারেন, আবার স্বল্পব্যবহৃত ইংরেজি শব্দকেও তিনি কবিতায় চালিয়ে দিতে পারেন অবলীলায়। যে কবি লিখতে পারেন ‘ঘুমের সলতের ডগায় গুপ্তির প্রচ্ছন্ন মচ্ছব’, তার পথ কে আটকাবে? মীননাথ থেকে লালন-রবীন্দ্রনাথ-জীবনানন্দ দাশ মিলে তো আমরা একটি কবিতাই লিখেছি। ফারাক কেবল কণ্ঠস্বরে। সিদ্ধার্থ অভিজিৎ সেই নতুন সুরবাণী শোনাতে এসেছেন।
তপন বাগচী
কবি-ফোকলোরবিদ
উপপরিচালক, বাংলা একাডেমি, ঢাকা।

পৌষালি ঘড়ির পোস্টমোর্টেম

$ 1.32 25% Off

একটি কাব্যিক নীরবতা

Highlights:

অনুভূতির পরাগ মাখানো প্রজ্ঞা নিয়ে মানব স্বঅবয়ব, দেশ, পৃথিবী ও জগতের
ঘটমানতাকে প্রত্যক্ষ করে। সেও ধর্মবিশ্বাসের আদলে আদম-হাওয়ার মিথের মত
খুঁজে পেতে চায় কার্য-কারনের একটি আদিম যুগোল। ভূমি ধ্বস, উষ্ণতা, মহামারি
বা একজন শাসক মানবের অস্তিত্বে যে সম্পন্নতা-বিপন্নতা সৃষ্টি করে তার বিশ্লেষণে
কার্য-কারনের ক্রোমোজোমের শিকল ধরে ধরে পৌঁছাই প্রাগৈতিহাসে, সংলগ্ন থাকি
ইতিহাসে, পৌছুতে চাই ভবিষ্যতে। এই কালিক-ধাবনে প্রজ্ঞার উচিয়ে থাকা রৌদ্রাকাঙ্খি
শাখা-প্রশাখা থেকে উড়তে থাকে জন্মান্তরের ক্ষমতা সম্পন্ন অনুভূতির বিস্ফোরক পরাগ,
ঝরে পরে মানবের পথ-পরিক্রমার মানচিত্রে। কবিতার ডালায় কুড়িয়ে নিলেই তা কবিতা
বা নিহিতার্থে রাজনৈতিক কবিতা।

একটি কাব্যিক নীরবতা

$ 1.32 25% Off

শব্দের পাঁজর ছুঁয়ে

Highlights:

শব্দের পাঁজর ছুঁয়ে

আইসক্রিম হাতে
স্কুল পালানো কিশোরী,
কিংবা
অপলক তাকিয়ে থাকা কিশোর,
কিংবা একটা মধ্য দুপুর,
আমাকেও ডেকে নিতে পারতো
ছায়াসঙ্গী হতে।

কিংবা বলতে পারতো মেঘ ডেকে আনা
অচিন বাঁশীবাদকের কাছে
তৃষ্ণার বর চেয়ে আনতে।

আমি অনেক গ্রীষ্মে
অপেক্ষায় থেকেছি, ঝরা পাতার মত
পায়ের নীচে বিছিয়ে
আমার পাঁজর বেয়ে হেটে যাবে
উদোম কিশোরী।

আমি লাল পাহাড়ের মত
সাদা বুক বকের কাছে চেয়েছি
একটা পালক,
কাকের কাছে চেয়েছি
একটা নখ।

আমি অপেক্ষায় থেকেছি
কিশোরীর স্কুল শেষে ফিরে আসার,
কিশোরের অপলক চোখের,
কিংবা উচ্ছল দুপুর রোদের।

আমাকে দাড় করিয়ে রাখতে পারতো
একটা প্রত্যাঘাত,
কিংবা একটা প্রতিশ্রুতি।

 

শব্দের পাঁজর ছুঁয়ে

$ 1.41 25% Off

অনার্যের সাইকেল

Highlights:

নিজস্ব অন্ধকার থেকে ছড়িয়ে যাচ্ছে ঢেউ—চারিদিকে অনাহুত স্বপ্নের প্রলাপ। তুমুল তীব্রতায় প্রবাহিত স্বপ্নের মতন হাজির হয় আর্য-অনার্যের প্রতিবিম্ব। মুখোমুখি দাঁড়িয়ে থাকে অসমাপ্ত সিঁড়ি। সেখান থেকেই শুরু হয় ‘অনার্যের সাইকেল’। চলতে থাকে। চলতেই থাকে। সহস্র অশ্বখুর আর মায়ার বাঁধন কেটে নিজস্ব আয়নার দিকে। এমন বিসর্জন কিংবা আত্মআবিষ্কারের প্রলোভন নিয়ে হাজির হয়েছে বাংলা অঞ্চলের পুরাতীর্তি ও সাগরীয় সনেটের কাক্সিক্ষত একগুচ্ছ সিঁড়ি। নির্দ্বিধায় উড়াল দেয়া যায় সে পথে—ফেলে আসা ঠিকানার দিকে কিংবা সমসাময়িক তৈলচিত্রের অভ্যন্তরে। প্রস্তুুতি পর্ব পেরিয়ে আসা অগ্রসর ক্ষুধার পথিককে এই সচেতন নির্মাণের তীব্র দহন ও সাইকেলের রূপ-রস আরো উজ্জ্বল করে তুলবে।

অনার্যের সাইকেল

$ 1.76 25% Off
1 2 3 13 14
Scroll To Top
Close
Close
Shop
Filters
0 Wishlist
0 Cart
Close

My Cart

Shopping cart is empty!

Continue Shopping