মোজাম্মেল হক নিয়োগী

পিতামহের প্রতিষ্ঠিত নিজ গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া শুরু। তারপর নান্দাইল রোড হাই স্কুল, আঠাবাড়ি ডিগ্রি কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লেখাপড়া শেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজকল্যাণ ও রাষ্ট্র বিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন। এরপর চাকরিজীবনে বি.এড ও এম.এড ডিগ্রি লাভ করেন।
লেখালেখির শুরুটা খুব পরিকল্পিত না হলেও চাকরিজীবনের বেঁচে যাওয়া সময়ে কঠিন অধ্যবসায় ও অবিরাম লেখালেখির অভ্যাসটি জোরালেভাবেই তৈরি হয়েছে। বহুমাত্রিক এই লেখকের সাহিত্যের প্রায় প্রতিটি শাখাসহ একাডেমিক গ্রন্থ নিয়ে মোট ৯৫ গ্রন্থ ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে।

মোজাম্মেল হক নিয়োগীর প্রকাশিত গ্রন্থাবলি-

উপন্যাস
প্রান্তিকী, ত্রিমাত্রিকী, ক্যাম্পাসকাব্য, ছায়াপথ, অ্যাকোরিয়ামের মীনকন্যা, গ্রাস,
রণোত্তর সেলুট, ঘূর্ণিবায়ু ও ধূসর কাবিন, তৈলাক্ত বাঁশবাহী শাখামৃগ, অরণি, ফাঁদ,
জলের লিখন, কুহেলীকুহক, কাল বাতাস, শেষ কথাটি যাও বলে, মায়াবী দৌলত,
উপন্যাস ত্রয়ী, পুষ্পকথা।

কিশোর-কিশোরী উপন্যাস
তিন্নির পথ খোঁজা, আগুনঝরা দিন, স্কুলের সেইসব দিন, সুপর্ণার গোয়েন্দাগিরি, ওরা
কিশোর মুক্তিযোদ্ধা, রাজুদের বাড়ি আসার পর, ছোট মামা, একাত্তরের কিশোর
যোদ্ধারা, বত্রিশের সবুজ পাতা, শরণার্থী শিবির থেকে, রহস্যময় কাঞ্চনবন,
জগোবিজ্ঞানীর পাঠশালা, নিশাত, শিশু-কিশোর সমগ্র।

গল্পগ্রন্থ
ঝড়সন্ধ্যা, শিকল হরিণ, প্রেমের গল্প, রক্তপ্রেমের গোধূলি, মহানায়কের ফেরা, জনকের
শিশু-কিশোর গল্প (সম্পাদিত), কৃষ্ণপক্ষের জোছনা।

কবিতা ও ছড়া
অনুযোগ অভিযোগ, একরোখা, প্রেমের কবিতা (ইংরেজি অনুবাদসহ), তোমার সাথে
দেখার হওয়ার পর থেকে, ফেরারি বিহগ, ছড়া পড়ি রং করি, ফুল পাখিদের ছড়া।

শিশুতোষ গল্পগ্রন্থ
কাকের ছানার রং বদল, কুকুরের শহর দেখা, কাতু-কুতু, জট খুলে শব্দ শিখি (১-৫
সিরিজ), পাখিদের ঝগড়া, আয়না ভূত, কেনু দাদার পালা ভূত, বানর কুকুর ও শিয়াল,
বানরের যুদ্ধ, বানরের কাঁঠাল, খাওয়া, বানরের ছবি তোলা, বানর গেল ডাক্তার
আনতে, টিয়ের বিয়ে, বল ও ব্যাট, কাঠবিড়ালির মজা, লাল পুতুল, রং পেন্সিল, এক
শিয়ালের কা-, শিয়ালের চালাকি, কচ্ছপ ও খরগোশের কাহিনি, সাগর পাড়ের রিমন,
বলির একদিন, মেঘবেলুন, আসমা ও একটি পরি, মনার রঙিন ঘুড়ি, অনুর বাড়ি ফেরা,
ময়না কথা কয় না, মুক্তিযোদ্ধার ছেলে, রাজার সাথে বাজি, পাখিঘুড়ি পাতাঘুড়ি, হাঁসের
ছানা, সোনালি জরির জামা, কাকতাড়ুয়া পাখতাড়ুয়া, ঝড় ঝড় আম পড়, আম জাম
আতা, ইনটি বিনটি পিনটি, নীল পুতুল লাল পুতুল, নীল দৈত্য ও বুদ্ধিমতি রাজকুমারী,
বোকা পরি ও তিতলি, টোনাটুনি ও পাতার নৌকা, মিনি ও হাঁসের ছানা, পরির বল
খেলা, ছবি ও প্রজাপতি, মজার বল, কলাচাষি শিয়াল, ভাষা ও মুক্তিযুদ্ধের গল্প, এক
সকালে টম, নিতুন ও চড়ুই, রোবটম, মোবাইল দৈত্য, গল্পগুলো ভূতের, এলিয়েন ও
ভত, বোকা বানরের গল্প, টূনির গল্প, রিমির লাল বই, গোলাপের অহঙ্কার, ব্যাঙ মামার
বিশ্বভ্রমণ, বুদ্ধিমতী রাজকুমারী, রাজার ফুটবল খেলা, রাজুর বন্ধু, নিপার আঁকিবুঁকি,
সবজ হাতি, কাঠবিড়ালির চালাকি, নাজমার হিমালয় বিজয়, নীল বানর ও সবুজ হাতি
The Intelligent Princess, The Bird-Kite and The Leaf-Kite, The Duckling,Nitun and the Sparrow, An Amazing Ball| .

অনুবাদ
The Monk Who Sold His Ferrari (Novel).
Children story (from Bengali into English)
The Rat, The Clever Cock, My Car, The Bat and the Frog, The Cloud and
Fairy.

টিভি নাকট ও শর্ট ফিল্ম
দক্ষিণের মানুষ, গন্তব্য, কৃষ্ণপক্ষের জোছনা।

প্রশিক্ষণ ও গবেষণা
প্রশিক্ষণ পরিচিতি (তৃতীয় সংস্করণ, দ্বিতীয় মুদ্রণ), প্রশিক্ষণ সহায়ক পরিবেশ (দ্বিতীয়
সংস্করণ), ফ্যাসিলিটেশন পরিচিতি (দ্বিতীয় সংস্করণ), পিআরএ/পিএলএ: তত্ত্ব ও
প্রয়োগ, যোগাযোগের প্রাথমিক ধারণা, Focus Group Discussion in Training
Needs Assessment and Evaluation, Application of Logframe in Training.

Journal Article
People’s Participatory Planning: A Process to Achieve Community
Participation in Health Activities; (Published by ICDDR,B), 1994.
Focus Group Discussion in Training Needs Assessment and Evaluation,
The Journal of Development Communication, Kuala Lumpur, Malaysia,
Vol 13 No: 2 December 2002.
The Life Style of Male having Sex with Male (MSM) in Bangladesh: A
Study in Two Suburb Areas of Dhaka City, Bangladesh Sociological
Studies, A Journal of Bangladesh Institute of Social Research (BISR),
Dhaka, Vol – 1, Number – 1, March 2005.

মোজাম্মেল হক নিয়োগী

Showing all 5 results

Show:

ফাঁদ- মোজাম্মেল হক নিয়োগী

Highlights:

সমাজের উচ্চবিত্ত শ্রেণির বিত্তশালী নারী সাবরিনা যে কিনা নিজেও এক সময় পতিতাবৃত্তি করে বিপুল ধনসম্পদের মালিক হয়েছে এবং নিজের বিলাশবহুল ফ্ল্যাটে নানা কৌশলে-প্রলোভনের ফাঁদে ফেলে দালালদের মাধ্যমে সুন্দরী তরণীদের নিজের ফ্ল্যাটে রেখে প্রভাবশালীদের মনোরঞ্জন করে। তারই ফাঁদে পড়ে হতদরিদ্র পরিবারের কিশোরী পুষ্প আপন ভগ্নিপতির প্রলোভনে ঢাকায় এসে সাবরিনার বাসাবন্দি হয়ে যৌনকর্মী হতে বাধ্য হয়। পুষ্প ও সাবরিনাকে কেন্দ্র করে এই উপন্যাসে বর্ণচোরাদের চরিত্র উন্মোচিত করে উপন্যাসটি নির্মিত। এক সময় পুষ্প গ্যাং রেপড হলে প্রতিহিংসার আগুনে সে দগ্ধ হয়ে নওয়াব আলীর ওপর প্রতিশোধ নিতে চায়। পুষ্পর জীবন হয়ে ওঠে আরও দুর্বিষহ। এরপরও একটু ভরসা ও স্বপ্নের স্থান: পুষ্পর যৌনবৃত্তির কথা জেনেও সাবরিনার ফ্ল্যাটের দারোয়ান যে কিনা অত্যন্ত পড়ুয়া আবদুল কাদের তাকে ভালোবাসে। এতটুকুন মিষ্টি প্রেম কারারুদ্ধ জীবনে পুষ্পর জন্য যেন নিশ্বাস নেওয়ার সতেজ অম্লজান…

ফাঁদ

$ 3.62 25% Off

পুষ্পকথা

Highlights:

ফাঁদ উপন্যাসের কেন্দ্রীয় দুটি চরিত্র ছিল পুষ্প ও কাদের। ফাঁদ উপন্যাসটি পাঠকের প্রশংসা পাওয়ার পর মনে হলো এই চরিত্র দুটি দিয়ে উপন্যাসটিকে সম্প্রসারণ করা যায় এবং তখন এর দ্বিতীয় খ- লেখার পরিকল্পনা করা হয়। আপন ভগ্নিপতি দ্বারা প্রতারণার ফাঁদে পড়ে গ্রামের এক হতদরিদ্র পরিবারের অপূর্ব সুন্দরী কিশোরী পুষ্প বাধ্য হয়ে আবাসিক পতিতা হয়ে ধন্যঢ্য পুরুষের মনোরঞ্জন করে। একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ভগ্নিপতির ওপর প্রতিশোধ নিতে গিয়ে নাটকীয় ঘটনা ঘটানোর ফলে ভগ্নিপতি আত্মহত্যা করে এবং পুষ্পর জেল হয়। সেই বাসার দারোয়ান ছিল এমএ পড়–য়া কাদের। জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর পুষ্প ও প্রেমিক কাদের নতুন করে জীবনের স্বপ্ন দেখে, ঘর বাঁধে। অস্থিত্ববাদী কাদের ও পুষ্প যথাসম্ভব লোকচক্ষুর আড়ালে থেকে কঠোর পরিশ্রম করে বেঁচে থাকার সংগ্রামে লিপ্ত হয়। কিন্তু সমাজ কি আর তাদের জন্য সেই সুযোগ অবারিত? সামাজিক ও পারিবারিক নানা রকম প্রতিকূলতার মুখোমুখি হতে হয় তাদেরকে প্রতি নিয়ত। দুটি জমজ সন্তানও হয়। কঠোর পরিশ্রমী কাদের যখন একটি স্বপ্নময় সুখের সংসারের স্বপ্ন দেখছিল তখনই তার জীবনে নেমে আসে এক কঠিন প্রাণহারী আঘাত।
এই উপন্যাস ধারণ করেছে সময়। চরিত্রগুলোর নির্মাণ ও মনস্তাত্ত্বিক নিবিড় বিশ্লেষণ পাশাপাশি নব্বই দশকের শেষ এবং শূন্য দশকের শুরুর দিককার সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিবর্তন ও ঘটনাবলি উপন্যাসটির ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে।

 

পুষ্পকথা

$ 4.65 27% Off

উপন্যাস ত্রৈয়ী

Highlights:

প্রাক্-কথন

উপন্যাস ত্রয়ীর চরিত্র, এলাকা, প্রেক্ষাপট, নিসর্গ—সবই কাল্পনিক। লেখকের তীক্ষ্ণ অন্তর্দৃষ্টির শস্ত্রে ব্যবচ্ছেদ করা সমাজের নিগূঢ় সত্য বাস্তবতার ক্যানভাসে পরিস্ফুটিত হয়েছে। তিনটি উপন্যাস দখল করেছে তিন ধরনের উপচার। ফাঁদ উপন্যাসটির ব্যাপক সংস্করণ হয়েছে। পরিবর্তন, পরিমার্জন ছাড়াও কলেবরও বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় দ্বিগুণ। প্রথম মুদ্রণের পর এই মলাটের উপন্যাসটি একই পাঠক পাঠ করলে হোঁচট খাবেন। ত্রয়ীর মলাটের বাকি দুটি উপন্যাসের সামান্য সংশোধন হয়েছে।

ফাঁদ
পুরুষের মনোরঞ্জনের জন্য নারীর শরীরই প্রধান মাধ্যম। যুগ যুগ ধরে পুরুষের মর্ষকামিতা, ভোগ-বিলাস ও নিষ্পেষণের শিকার নারীদেরকে খাঁচায় বন্দি করতে শুধু পুরুষই নয়, বরং স্খলিত ও হীন চরিত্রের নারীরাও সেই ক্ষেত্র তৈরি করায় ভূমিকা রাখে। এমনই এক নারী সাবরিনা তার বাসায় কিশোর বয়সী মেয়েদের ফাঁদে ফেলে পতিতাবৃত্তিতে লাগিয়ে বিত্তবৈভবের মালিক হয় সে। সাবরিনার মতো অনেক মাধুকরীর প্ররোচনায় ও পৃষ্ঠপোষকতায় শহরের অনেক বাসায় পতিতাবৃত্তির বিস্তার লাভ করে। শিকার হয় পুষ্পর মতো নিষ্পাপ কিশোরীরা। সাবরিনার যোগসাজশে আপন ভগ্নিপতি নওয়াব আলী পুষ্পকে দেহ-ব্যবসায় বাধ্য করায়। এক রাতের ঘটনায় মানসিকভাবে ভেঙেপড়া পুষ্প প্রতিশোধ স্পৃহায় নওয়াব আলীর ছোট বোন টুনিকে এই ফাঁদে ফেলে ঢাকায় নিয়ে আসে। টুনিকে কেন্দ্র করেই উপন্যাসটি চূড়ান্ত পরিণতির দিকে গড়ায়। এই উপন্যাসের মূল কাহিনি থেকে একটি পূর্ণদৈর্ঘ চলচিত্র (প্রিয়াংকা) নির্মাণের শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

শেষ কথাটি যাও বলে
একটি অভিজাত, নিপাট ও নিষ্কাম প্রেমের আখ্যান। শুরুর দিকে ত্রিভুজ প্রেমের ইঙ্গিত থাকলেও ঘটনাক্রমে প্রথম প্রেমিকার নিরাসক্তির কারণে দুজনের প্রেমই পরিণতির দিকে গড়ায়। বাংলাদেশের ছয়জন পেশাজীবীর কিছুদিনের প্রণোদনা প্রশিক্ষণের সময় দক্ষিণ ভারতে ভ্রমণের মধ্য দিয়ে উপন্যাসটি নির্মিত হয়। প্রেমের গভীর স্পন্দন অনুভূত হয় বাংলাদেশের নির্ঝর এবং দক্ষিণ ভারতের ট্যুরিস্ট গাইড অধরার বুকের গহিনে।

জলের লিখন
যুদ্ধকন্যা মারিয়াকে ঘিরে নির্মিত হয় জলের লিখন। কোনো এক অশুভ মুহূর্তে কলহপ্রিয় মাকে আতিকের বাবা তালাক দেওয়ার পর যখন হিল্লা বিয়ের ব্যাপারে আলাপ-আলোচনা হচ্ছিল তখন, এরূপ হিল্লা বিয়ের মতো ন্যক্কারজনক ও অপমানজনক ঘটনা প্রত্যক্ষ করার কষ্ট থেকে নিষ্কৃতি পেতে মেধাবী কিশোর গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে ঢাকায় এসে বিভিন্ন প্রতিকূল পরিস্থিতির সঙ্গে সংগ্রাম করে সার্টিফিকেটবিহীন ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করে একটি এনজিওতে চাকরি পায় এবং যুদ্ধকন্যা মারিয়ার দোভাষীর কাজ করার সময় উভয়ের মধ্যে সরল প্রেম-রসায়নের সৃষ্টি হয়। অবৈধ সন্তানের মা পারভিনের সঙ্গে প্রেমের কলি ফুটলেও পাপড়ি মেলেনি। উপন্যাসটির বিস্তর ক্যানভাস জুড়ে খোদিত হয়েছে এনজিওর কুহনিকা।

জনপ্রিয় লেখক না হলে তিনটি উপন্যাসকে একটি মলাটে মুদ্রণ নিঃসন্দেহে ঝুঁকিপূর্ণ। ব্যবসায়িক দিক থেকে অসাফল্যের দরজায় কড়া নাড়ার আওয়াজ শুনেও এত বড় ঝুঁকিপূর্ণ বোঝার কঠিন দায় নিয়ে অনুপ্রাণন প্রকাশনের পক্ষ থেকে আবু ইউসুফ ভাই বড় ঋণী করলেন। সীমাহীন আন্তরিকতা, অত্যন্ত যত্ন ও দায়িত্ব নিয়ে তিনি ‘উপন্যাস ত্রয়ী’ প্রকাশ করেছেন। তাঁর প্রতি রইল অশেষ কৃতজ্ঞতা।

উপন্যাস ত্রয়ী

$ 11.78 25% Off

ঘূর্ণিবায়ু ও ধূসরকাবিন

Highlights:

জন্ম ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানার সুরাশ্রম গ্রামে। পিতামহের প্রতিষ্ঠিত নিজ গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া শুরু। তারপর নান্দাইল রোড হাই স্কুল, আঠাবাড়ি ডিগ্রি কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লেখাপড়া শেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজকল্যাণ ও রাষ্ট্র বিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন। এরপর চাকরিজীবনে বি.এড ও এম.এড ডিগ্রি লাভ করেন।

লেখালেখির শুরুটা খুব পরিকল্পিত না হলেও চাকরিজীবনের বেঁচে যাওয়া সময়ে কঠিন অধ্যবসায় ও অবিরাম লেখালেখির অভ্যাসটি জোরালেভাবেই তৈরি হয়েছে। বহুমাত্রিক এই লেখকের সাহিত্যের প্রায় প্রতিটি শাখাসহ একাডেমিক গ্রন্থ নিয়ে মোট ৯৫ গ্রন্থ ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে।

ঘূর্ণিবায়ূ ও ধূসর কাবিন

$ 1.84 40% Off
Scroll To Top
Close
Close
Shop
Sidebar
0 Wishlist
0 Cart
Close

My Cart

Shopping cart is empty!

Continue Shopping